certifired_img

Books and Documents

Bangla Section

প্রায় দুই দশক আগে ভিয়েনা বিবৃতি এবং সেই সংক্রান্ত কার্যসূচী মূলত সবরকম মানবাধিকার নীতি উলঙ্ঘনের দূরীকরণের উদ্দেশ্যে গৃহীত হলেও বাস্তবে আমরা কিছু কিছু ক্ষেত্রে তার ক্রম অবনতিই দেখতে পাই।আর্টিকল 15 তে জেনোফোবিয়ার বিরুদ্ধে কাজ করা কথা বলা হয়েছে এবং আর্টিকল 19 এ সরকারের পক্ষ থেকে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার দিকটি  সুরক্ষিত করার কথা বলা হয়েছে। জেনোফোবিয়া, মূলত ইসলামোফোবিয়ার একটি রূপ  যা কয়েকটি ইউরোপিয়ান দেশগুলিতে মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে এবং কিছু মুসলিম প্রধান দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার উলঙ্ঘনের দিকটি ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে তুলছে।....

 

সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, মনস্তাত্ত্বিক বিভিন্ন কারণের মধ্যে একটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য হ'ল আধিপত্যবাদী, জেনোফোবিক, অসহিষ্ণু, এক্সক্লুসিভবাদী এবং সর্বগ্রাসী জিহাদি ধর্মতত্ত্বের ভিত্তিতে দুর্বল লোকদের মগজ ধোলাই। এটি ইসলামের মতো  এক আধ্যাত্মিক মুক্তির পথ  যা  সহ-অস্তিত্ব এবং ভাল প্রতিবেশিতার শিক্ষা দেয তার  অপব্যবহার।.....

 

ইসলামী সন্ত্রাসের নৃশংসতার দেখেও যখন রাষ্ট্রপতি ওবামা এটিকে সহিংস উগ্রবাদ বলার অপেক্ষা রাখে না, সুন্নি ইসলাম শিক্ষার প্রাচীনতম আসনের প্রধান, মক্কায় সন্ত্রাসবিরোধী সম্মেলনে জামিয়া আল-আজহার স্বীকার করেছেন যে, “কুরআন এবং নবী মহম্মদের বক্তব্যের বিকৃত ব্যাখ্যার” কারণে উগ্রবাদ সৃষ্টি হয়েছিল এবং ইসলামধর্মীর পাঠ্যক্রম বদলানো দরকার।...

 

বিশ্ব যখন জিহাদী সহিংসতায় ভুগছে,   মুসলমানরা  ইসলামপন্থী জিহাদিবাদী মতাদর্শ দ্বারা প্ররোচিত সাম্প্রদায়িক যুদ্ধে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এবং এখনও, ৯ / ১১-এর প্রায় দুই দশক পরেও মুসলিম দেশগুলি অস্বীকার করে চলেছে।  ইজমার ইসলামিক ধর্মতত্ত্ব ভিত্তিক ইসলামী আদর্শ হিংসাত্মক উগ্রপন্থা কে সকল দায়বদ্ধতা থেকে মুক্ত করেছে।ফলস্বরূপ, মুসলিম শিশুদের মাদ্রাসায় ইসলামের আধিপত্যবাদ এবং অন্যান্য ধর্মের প্রতি অবজ্ঞার শিক্ষা দেওয়া অব্যাহত রয়েছে। এমনকি স্পষ্টত সহিংস প্যাসেজগুলি এখনও পাঠ্য পুস্তকগুলি থেকে সরানো হয়নি।…

 

আউটলুকইন্ডিয়া ডটকম-এ প্রকাশিত এক সরকারি সূত্রে খবর প্রকাশিত হয়েছে যে, মুসলিম যুবকদের জিহাদের সাহিত্যের জালে আটকে পড়া রুখতে  ইন্টারনেট ভিত্তিক "ধর্মীয় নেতাদের অনানুষ্ঠানিক চ্যানেল" তৈরি করা শুরু করেছে, । এটি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (এমএইচএ)  একজন প্রবীণ আইপিএস কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বলেছে যে "এই (আইএসআইএস অনলাইন প্রচার) একইভাবে মোকাবেলা করা দরকার," এবং কেবলমাত্র মুসলিম যুবকদের গ্রেপ্তারই সমস্যার সমাধান নেই । ....

 

রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ শিরোনামে সুপ্রিম কোর্টের রায় ঘোষণার আগে বিশিষ্ট মুসলিম সংগঠনগুলি সংকল্প নিয়েছিল যে আদালতের রায় যাই হোক না কেন তারা শান্তি সম্প্রীতি বজায় রাখবে " মুসলমান বুদ্ধিজীবীরা যারা হিন্দু মুসলমান উভয়কেই খুশি করার জন্য দীর্ঘস্থায়ী বিরোধের মধ্যে আদালতের বাইরে সমাধানের আহ্বান জানিয়েছিলেন, তারা দেশে স্থায়ী শান্তির স্বার্থে এই জমি হিন্দুদের হাতে হস্তান্তর করার আবেদন করেছিলেন।....

 

কম-বেশি স্পষ্ট যে বিতর্কিত বাবরি মসজিদ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট খুব শিগগিরই রায় দেবে। সাম্প্রতিক এসসি রায  গুলি কে দেখে বলা যেতে পারে যে  আদালত এই রায় আর বিলম্ব করবে বলে সম্ভাবনা কম। সাম্প্রতিক রায়গুলি আমাদের একটি ধারণা দিয়েছে যে রায়টি কোন দিকে jabe  তবে, এসসি এখনও নিরপেক্ষ বলে ধরে নিলে, সর্বোচ্চ আদালতমুসলিম দলেরপক্ষে বাহিন্দু দলেরপক্ষে  রায় দেবে। এটি উভয় পক্ষকেই সমান্তরাল করে তুলতে পারে না কারণ এটি ছিল স্পষ্টতই এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়ের স্পিরিট যা এসসি ইতিমধ্যে প্রত্যাখ্যান করেছে। এবার, শিরোনাম মামলা একবারে  নিষ্পত্তি হবে।….

 

অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ-রাম জনম ভূমি বিবাদের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের অপেক্ষায় ভারতবর্ষের মুসলমাদের  কিছুটা উদ্বিগ্ন হওয়া স্বাভাবিক। . বিভিন্ন ধরণের গুজব ভেসে উঠছে যা আমাদের মিডিয়ার কোনও দায়িত্বশীল বিভাগে পুনরাবৃত্তি বহন করে না। তবে এগুলি বহু মুসলমানদের  মনে শঙ্কর সৃষ্টি করছে । তবে প্রতিটি চ্যালেঞ্জও একটি সুযোগ থাকে।৬ ডিসেম্বর  ১৯৯২ সালের বাবরি মসজিদ ধ্বংশ  মুসলমানদের একটি সুযোগ দিয়েছিল। এখন যেহেতু মসজিদটি আর নেই এবং মুসলমানরা ইট, মর্টার বা জমির প্লট কে উপাসনা করে না, তারা দুষ্কৃতীদের ক্ষমা করে   মন্দির তৈরির জন্য জমিটি উপহার দিয়ে দিতে পারত। আমি ১৩ জানুয়ারী, ১৯৯৫ সালে দ্য হিন্দুস্তান টাইমস, এ  প্রকাশিত আমার নিবন্ধ শীর্ষক  "মুসলমানদের জন্য সুযোগ" এ  এই বক্তব্যটি তুলে ধরেছিলাম । এটি জুলাই, ২০০৯-এ নিউএজআইসলাম.কম-এ পুনরুত্পাদন করা হয়েছিল। আমি  এখানে প্রায় 25 বছর আগে লিখিত এই নিবন্ধটি থেকে কিছু প্রাসঙ্গিক উদ্ধৃতি দেবো।…

 

নিউ এজ ইসলামের একজন নিয়মিত পাঠক আমাকে লাগাতার ফোন কল করছে, তিনি লিখেছেন আমাদের ধারাবাহিক লেখক দিল্লির গোলাম রসুল দেহলবী প্রবন্ধটি আগস্ট 2 2018 আমাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট করেছিলেন, পুনর্বার এই প্রবন্ধটি দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকা আমাদের বিনা অনুমতিতে ছেপে দিয়েছে।...

 

একজন তুর্কি আইনজীবী ও একজন পন্ডিত ব্যক্তির প্রস্তাব অনুযায়ী দেশের মুসলমানদের আরবি ভাষার পরিবর্তে তুর্কি ভাষায় নামাজের দাওয়াত দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হবে। তাদের রিপাবলিকান পিপলস পার্টি এ কারণেই অনেককেই পার্টি থেকে বহিষ্কার করে দিয়েছেন যদিও ওই পার্টি যখন শাসন ক্ষমতায় ছিল এখন অবশ্য বিরোধী দলে আছেন আজান তুর্কি ভাষাতেই দেওয়া হতো।....

 

ভারতীয় মুসলমানরা ৫ হাজার বছরের পুরানো সভ্যতার উত্তরাধিকারী। আমাদের সভ্যতা প্রতিটি সম্ভাব্য উপায়ে বিশ্বের সেরা ছিল। আমাদের সভ্যতা প্রতিটি সম্ভাব্য উপায়ে বিশ্বের সেরা ছিল।তবে আমাদের বলা হচ্ছে যে এখন আমাদের সংস্কৃতিকে সপ্তম শতাব্দীর আরবের মরুভূমির বেদুইন সংস্কৃতির সাথে খাপ খাইয়ে চলতে হবে ।…

 

অর্ধ শতাব্দীরও বেশি আগে পাকিস্তান মুসলিম ব্যক্তিগত আইনগুলির সংস্কার করেছিল, পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতার পরে বাংলাদেশ আরও সংস্কার করেছে।মুসলিম ব্যক্তিগত আইন আবারও আইনী চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি।তবে ভারতে ইসলামিক শরিয়া-র স্ব-ঘোষিত অভিভাবকদের পক্ষে সবচেয়ে অশুভ বিষয় সামাজিক চ্যালেঞ্জ।তিন দশক আগে শাহ বানো মামলার বিপরীতে সায়রা বানোর আবেদনটি র পক্ষে এখন সম্প্রদায়ের মধ্যে বহু মুখর  সমর্থক রয়েছে।মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের উলামাগন  টেলিভিশনের বিতর্কেও কঠোর ধর্মতাত্ত্বিক প্রশ্নের মুখোমুখি হচ্ছেন।…

 

ভিয়েনা ঘোষণাপত্রে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে যে "প্রত্যেকেরই চিন্তাভাবনা, বিবেক, মত প্রকাশ এবং ধর্মের অধিকার রয়েছে।"গত মার্চ মাসে মার্কিন মানবাধিকার কাউন্সিল  ইসলামিক রাষ্ট্রসমূহের পক্ষে পাকিস্তানের প্রস্তাবিত একটি প্রস্তাব পাস করে, যাতে "ধর্মের মানহানি" কে মানবাধিকার লঙ্ঘন বলে নিন্দা করা হয়েছে।56-দেশীয় সংস্থা ওআইসি-এর  পক্ষে বক্তব্য রেখে পাকিস্তান বলেছে যে "ইসলাম কে প্রায়শই এবং ভুলভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং সন্ত্রাসবাদের সাথে যুক্ত করা হয়েছে।এই ঘোষণা পত্রে জাতিগত  ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের প্রতি অসহিষ্ণুতা প্রদর্শনকারীদের জন্য "দায়মুক্তি অস্বীকার করা" এবং "সকল ধর্ম ও বিশ্বাসের প্রতি সহিষ্ণুতা ও শ্রদ্ধার প্রচার করার জন্য সম্ভাব্য সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করার" প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।তবে রাষ্ট্রপতি মহাশয়,  সংখ্যালঘু ধর্মীয় বিশ্বাসের প্রতি অসহিষ্ণুতা ও অসম্মান প্রকাশের ঘটনাগুলির  খবর  প্রায়ই ইসলামী দেশগুলি, বিশেষত পাকিস্তান থেকে বেরিয়ে আসে …

 

কাশ্মীরিদের সন্ত্রাসবাদকে ফারজ-এ-আইন (প্রতিটি মুসলমানের জন্য বাধ্যতামূলক দায়িত্ব) হিসাবে বিবেচনা করার জন্য কাশ্মীরিদের প্রতি আপনার বারবার পরামর্শের মাধ্যমে ইসলামী শরিয়া সম্পর্কে আপনার সম্পূর্ণ বোঝার অভাব স্পষ্ট হয়ে উঠেছে । ফারজ-এ-আইন সম্পর্কে  প্রাথমিক জ্ঞান ও আপনার কাছে নেই বলে মনে হয়। আমি আপনাকে ফিকহের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুটি বিদ্যালয়ের (ইসলামিক আইনশাস্ত্র) ফারজ-এ-আইন সম্পর্কিত কয়েকটি সংক্ষিপ্ত সংজ্ঞা উদ্ধৃত করি।...

 

এই নিবন্ধটি রায়হান নিযামি সাহেবের সমালোচনার সাথে সম্পর্কিত যেটা তিনি অন্য কোন প্রবন্ধের উপর করেছিলেন। তাঁর সেই অমূল্য উপলব্ধি প্রবন্ধের শেষে সংযোজিত হল। জনাব রায়হান নিযামী সাহেবের দৃষ্টিভঙ্গি গুরুত্বপূর্ণ কেননা তা অধিকাংশ সময় মুসলমানদের ধৈর্যহীনতা, অত্যাচার প্রবনতা, অপরিচিতকে ঘৃণা, নিজেকে যাচাই করার অক্ষমতা ইত্যাদি অবস্থানগুলির প্রতিনিধিত্ব করে।

 

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই বিগত ১৭ বৎসর যাবৎ চলছে, কিন্তু ইসলামের নামে চলা সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় আমরা সফল হতে পারিনি। জেহাদী এবং ইসলামী সংগঠনগুলি এখনও মুসলিম যুবকদের কুক্ষিগত করেই চলেছে। তার কারন আন্তর্জাতিক স্তরে ইসলামিজম ও জেহাদিজম এর দৃষ্টিভঙ্গির দিকে প্রয়োজন অনুযায়ী মনোযোগ দেওয়া হয়নি।……..

 

ইসলামপন্থী সন্ত্রাসবাদের জোয়ার বন্ধ করার লক্ষ্যে বিশেষ করে 9/11 সাল থেকে বিশ্বজুড়ে উলেমা (ইসলামী পণ্ডিতদের) দ্বারা বহু ফতোয়া জারি করা  হয়েছে। হাজার হাজার উলেমা ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ এবং বিশ্বের অন্যান্য অংশে ইসলামী শিক্ষার প্রভাবশালী প্রতিষ্ঠানগুলির দ্বারা প্রকাশিত এই ফতোয়াগুলিকে সমর্থন করেছে। তখন এই ফত্বগুলি অনেক প্রত্যাশা জাগিয়ে ছিল। যখন জুন 2008 সালে, হাজার হাজার দেওবন্দী উলেমা ভারতবর্ষের দেওবন্দে শত বছরের পুরানো ইসলামী মাদ্রাসার দ্বারা প্রদত্ত একটি ফতোয়া সমর্থন করেছিলেন,  তখন জিয়াউদ্দিন সরদার এর মতো একজন পর্যবেক্ষক বলেছিলেন যে এটা "স্পষ্টতই  সন্ত্রাসবাদ  এর যুদ্ধের  শেষের  শুরু।  একইভাবে, সুফিবাদ-ভিত্তিক বারাইলি, হার্ড-লাইন সালাফিস, আহল-ই-হাদিসিস, সবাই তাদের পৃথক বা যৌথ বিবৃতিতে ইসলামী সন্ত্রাসবাদকে নিন্দা জানিয়েছিলেন ।

 

অঙ্গদান অন্যের সাথে সহমর্মিতার অভিনব নিদর্শন। এর ফলে সমাজের মধ্যে এক বৃহৎ মানবিকতার প্রসার ঘটে।  এতে পরস্পরের মধ্যে ভালোবাসা ও সহমর্মিতার আবেগে বাঁচার গুরুত্ব দৃশ্যমান হয়ে অর্থাৎ একজন মানুষ মৃত্যুর পরেও অন্য একজন মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে সক্ষম হন।  অর্গন ডোনেশনে অঙ্গদাতার কোনো ক্ষতি হয়ে না, অপর দিকে সে অন্য কে এমন এক জিনিস দান করেছে যে হিরে জোহরতের চেয়ে ও দামি। 

 

জিহাদিরা সহিংসতার সম্পূর্ণ ধর্মতত্ত্ব, ঘৃণা ও অসহিষ্ণুতার  সুসংগত আখ্যান তৈরী করেছে যা সর্বগ্রাসী আর ফ্যাসিবাদের  সগোত্র।  এ ধর্মতত্ত্ব সংখ্যালঘু মুসলমান তরুণদের আকৃষ্ট করতে আর তাদেরকে সমবেদনা ও দয়ার মানব প্রবৃত্তি গুলির প্রতি অসমবেদনশীল করতে সক্ষম। সাধারণত, আত্মহত্যার জন্য কাউকে প্ররোচিত করা বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন কাজ হওয়া উচিত। কিন্তু যখনি ও যেখানেই কৃতসংকল্প ও সম্পদ্শালী গোষ্ঠীর প্রয়োজন হয়ে আত্মাঘাতী বোমা হামলার সেনাবাহিনী মুসলিম সমাজ থেকে উদ্ভূত হয় যারা অবর্ননীয় ও নিষ্ঠুর ক্রুরতার প্রমান দেয়।   

সুস্পষ্টরূপে এটা  ইসলামী আইডিওলজির আকর্ষণ ও শক্তির জন্যই সম্ভব  হয়েছে যেটা হাজার বছর ধরে মুসলমানদের মধ্যে ইসলামের ব্যাখ্যার থেকে সম্পূর্ণভাবে ভিন্ন।  সুফীমতের  প্রভাবে  মুসলমানরা একটি উদার ও  সহনশীল ধর্মে গর্বিত যেটা পূর্ববর্তী ধর্মগুলিরই  পুনরাবৃত্তি। মুসলিমরা  বিশ্বাস করে যে তাদের ধর্ম মানবতার জন্যে একটি উপহার।

সুতরাং, যখন শেষ শতাব্দীর শুরুতে সৌদি-ওয়াহাবী রাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সাথে সাথেএকটি  বিশেষত ইসলামের অসহিষ্ণু ব্যাখ্যা   প্রচার করা শুরু হয়, তখন মুসলমানরা তা  প্রত্যাখ্যান করে। কিন্তু বিষ্ময়কর তেল সম্পদ এবং ঠান্ডা যুদ্ধের প্রয়োজনীয়তাগুলি দ্রুততর  এই মতাদর্শে কে ছড়িয়ে দেয়।   এমন কি 9/11 এর পরেও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এই প্রক্রিয়াটিকে বাধা দেয়নি। বরং সন্ত্রাসীদের উন্নতিতে এটি বেশ কয়েকটি নতুন এলাকা তৈরি করেছে।

 

নিউ এজ ইসলাম আইএসআইএস-এর বিরুদ্ধে একটি প্রচারণা চালিয়েছিল এবং সরকার ও মুসলিম সম্প্রদায়কে জানিয়েছিল যে আইএসআইএস ইসলামের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য একটা ষড়যন্তরের অংশ এবং সরকারকে দাবি করে যে, দেশের মুসলমান তরুণদের উপর তার প্রভাব প্রতিরোধ করতে অবিলম্বে  আইএসআইএস কে নিষিদ্ধ করা উচিত।....

 

২৬/১১ এর এই অনুষ্ঠানে আমরা ভারতীয়রাও গর্বের সাথে বলতে পারি পাকিস্থানী সন্ত্রাসীরা এবং পাকিস্তানে অবস্থিত তাদের পরিচালকেরা ভারতীয় সমাজের যৌথ সংস্কৃতির উপর একটা দাগ ও কাটতে পারেনি। যদি আমরা বলি আজ গোটা দুনিয়ায় কোথাও যদি শান্তি ও নিরাপত্তার পরিবেশ তৈরি হয় সেখানে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের  কোনই নেতিবাচক প্রভাব পড়ে না। হয়ত আমাদের এই কথা আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের আত্মার প্রতি সবচেয়ে বড় শ্রদ্ধাঞ্জলি হবে। দূর্গতেরা ঠান্ডা মাথায় এই বর্বর আইডোলজির চরম বর্বরতা শিকার, যা আমাদেরকে বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীতে বিভক্ত করতে চায়। কিন্তু আমরা কখনই এই সন্ত্রাসীদের নাপাক ইচ্ছা সফল হতে দিইনি। আসুন ! এখন আমরা সবাই মিলে অঙ্গীকারাবদ্ধ  হই যে, আমরা তাদের দুনিয়ার কোথাও সফল হতে দেবোনা।


 

ইসলাম অর্থ আল্লাহর কাছে আত্মসমর্পণ। সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহর নির্দেশের কাছে নিজেকে সন্তুষ্ট চিত্ত সঁপে দেয়া। তার প্রতি ঈমান রাখা, তার কাছে প্রতিদানের আশা করা এবং বিশ্বাস করা যে আল্লাহর বিধান অনুযায়ী জীবন যাপনের মধ্যে রয়েছে কল্যাণ ও সফলতা। এটাও বিশ্বাস করতে হবে যে আল্লাহ তাআলা হলেন হাকিম বা মহাজ্ঞানী। তার বিধানই পূর্ণাঙ্গ ও সবচেয়ে শ্রেষ্ঠ এবং সুন্দর। তার প্রতিটি বিধানে রয়েছে হেকমত বা কল্যাণকর মহা উদ্দেশ্য। অনেক সময় মানুষ তার বিধানের কল্যাণকর দিক ও হেকমত যথার্থ ভাবে অনুধাবন করতে পারে না।

 

শুনে বেশ কঠিন মনে হলেও এটি Time Management এর এক নম্বর শর্ত। নিঃসন্দেহে ফযরের পরের সময়টুকু খুবই বরকতপূর্ণ। এই সময়ে নানাবিধ দূয়া ও যিকর হাদীসে পাওয়া যায় যেগুলোর ফযীলত ও প্রভাব অপরিসীম। দিনের শুরুই যদি হয় আল্লাহর সন্তুষ্টি এবং অন্তরের প্রশান্তি নিয়ে তবে সারা দিনের সমস্ত কাজ সময়মত গুছিয়ে নেওয়ার মানসিকতা তৈরী হয়ে যায়। গ্রীষ্মকালে ফযরের পর অফিস/স্কুল/কলেজ/ভার্সিটি টাইমের আগ পর্যন্ত প্রায় ২.৫-৩ ঘণ্টা এবং শীতকালে ১.৫-২ ঘণ্টা সময় পাওয়া যায়। এই বিপুল পরিমাণ সময়কে কাজে না লাগানোর কোন যৌক্তিকতা থাকতে পারে না, বিশেষত যখন এই সময়ে আল্লাহর অতিরিক্ত রহমত ও বরকত নেমে আসে। কুরআন-হাদীস পাঠ ছাড়াও দিনের গুরুত্বপূর্ণ কাজের কিছু অংশ এই সময়ে করে রাখা গেলে সারাদিনের চাপ কমে যাবে ইনশাআল্লাহ।

 

উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমাদের কাছে স্পষ্ট হলো যে, কুরআন, হাদীস ও গ্রহণযোগ্য আলেমদের বাণী থেকে আমরা জানতে পারলাম শা‘বানের মধ্য রাত্রিকে ঘটা করে উদযাপন করা, চাই তা নামাযের মাধ্যমে হোক অথবা অন্য কোন ইবাদতের মাধ্যেমে অধিকাংশ আলেমদের মতে জগন্যতম বিদ‘আত। শরীয়তে যার কোন ভিত্তি নেই। বরং তা’ সাহাবাদের যুগের পরে প্রথম শুরু হয়েছিল। যারা সত্যের অনুসরণ করতে চায় তাদের জন্য দ্বীনের মধ্যে আল্লাহ ও তাঁর রাসূল যা করতে বলেছেন তাই যথেষ্ট।

 

বিশ্বের কোনো দেশেই স্বাধীনতাবিরোধীদের রাজনীতি করার ইতিহাস নেই। সমাজে অবহেলিত হয়ে বসবাস করতে হয় তাদের। বিশ্বের বড় দুটি অর্থনৈতিক শক্তি আমেরিকা ও দক্ষিণ কোরিয়া। আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় দেশীয় সহযোগীরা ব্রিটিশ সেনাদের মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়ি চিনিয়ে দিত। ইতিহাসবিদদের হিসাব অনুয়ায়ী, প্রায় পাঁচ লাখ দেশীয় সহযোগী ব্রিটিশ সেনাদের সহযোগিতা করছে। এরা সমাজের ধনী ব্যক্তি ছিল। শত শত কালো দাসকে ব্রিটিশের পক্ষে যুদ্ধ করার শর্তে ব্রিটিশপ্রভুরা মুক্ত করে দিয়েছিল। কিন্তু ওরা মুক্ত হয়েই ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিল। আমেরিকা যখন স্বাধীন হয়, তখন ওই ব্রিটিশ সহযোগীদের ২০ শতাংশ আমেরিকা ছেড়ে ব্রিটিশদের আরেক সাম্রাজ্য, কানাডার অন্টারিও, কুইবেক ও নোভাস্কশিয়াতে চলে যেতে বাধ্য হয়। জর্জ ওয়াশিংটন ঘোষণা দিয়েছিলেন, ‘‘আমরা পরাজিত ব্রিটিশ সৈন্যদের কিছুই বলব না। তবে যারা এই সৈন্যদের মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়ি দেখিয়েছে, তাদের পিছনে আমরা একটি গুলিও খরচ করব না। তাদের গরম আলকাতরায় চুবিয়ে মারব।’’…..

1 2


Get New Age Islam in Your Inbox
E-mail:
Most Popular Articles
Videos

The Reality of Pakistani Propaganda of Ghazwa e Hind and Composite Culture of IndiaPLAY 

Global Terrorism and Islam; M J Akbar provides The Indian PerspectivePLAY 

Shaukat Kashmiri speaks to New Age Islam TV on impact of Sufi IslamPLAY 

Petrodollar Islam, Salafi Islam, Wahhabi Islam in Pakistani SocietyPLAY 

Dr. Muhammad Hanif Khan Shastri Speaks on Unity of God in Islam and HinduismPLAY 

Indian Muslims Oppose Wahhabi Extremism: A NewAgeIslam TV Report- 8PLAY 

NewAgeIslam, Editor Sultan Shahin speaks on the Taliban and radical IslamPLAY 

Reality of Islamic Terrorism or Extremism by Dr. Tahirul QadriPLAY 

Sultan Shahin, Editor, NewAgeIslam speaks at UNHRC: Islam and Religious MinoritiesPLAY 

NEW COMMENTS

  • astern Pakistan was declared the independent state of Bangladesh, and most of the Pakistani Hindus...
    ( By Dr.A.Anburaj )
  • Saudis never really cared for Muslim causes. They have...
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • Appeasing Islamists and terrorists is sheer idiocy. If the government....
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • GRD sb., you have a point. Thanks.
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • 4we should accept Quranic mode of talaq.
    ( By Arshad )
  • Madarsas are getting modernized, though it is too late.'
    ( By Talha )
  • arshad bhai, it was not about kinds of talaq--- it was something else Hurmate...
    ( By Huzaifa )
  • Faraz doesn't have courage to accept ur challenge. He doesn't know that there r 18 kinds of taalaq.'
    ( By Arshad )
  • Ghulam Mohiyuddin saheb, I think PLURALISM is a much better word than 'secularism'/...
    ( By GHULAM RASOOL DEHLVI )
  • Cheap Gulam Mohiyuddin has habit to Balme Hindus all the time, Hindutav may be response ...
    ( By Aayina )
  • बिना लाग लपेट का पहला शाही के क़रीब Article'
    ( By Aayina )
  • Can you debate with me Faraz on this topic?'
    ( By Huzaifa )
  • i have not yet seen the real and critical discussion on triple talaq despite its having ever been ...
    ( By Huzaifa )
  • 'jihad al-difa'a' and 'jihad al-talab' and such foppish words like 'Islamic conquests' are all pseudo ....
    ( By Rashid Samnakay )
  • Arshad, you have handled this complex subject very well....
    ( By RoyalJ )
  • This is sad. Islamists are setting Bangladesh as well as Malaysia and Indonesia....
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • Good article! Liberalism and secularism can pave the path to unity and harmony. They....
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • Why it is that your following Islam is not acceptable for them? Your burqa, your kurta, your pyjama...
    ( By Suhail )
  • It's true that islam enhances and emphasises peace and peacefull acts. Then why still islam is considered....
    ( By Faiiz Bin Shareef )
  • GRD sb you have nicely put your words.'
    ( By GGS )
  • Forced Conversion of Hindu Pakistani is really a violation of the basic teaching of Islam which...
    ( By Anjum )
  • Dear Ghulam Mohiyuddin sb, please let Mr. Hats off accuse me of Munafiqat, as his accusation gives me a chance...
    ( By Ghulam Ghaus Siddiqi غلام غوث الصديقي )
  • There should be no objection to revisting the Islamic conquests. There needs a balance between the advocates ....
    ( By Ghulam Ghaus Siddiqi غلام غوث الصديقي )
  • GM saheb, Both 'jihad al-difa'a' and 'jihad al-talab' were relegated to the historical context which is irrelevant....
    ( By GRD )
  • I had to laugh seeing Hats Off accusing GGS sb. of munafiqat!
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • There is no reason to sanctify Islamic conquests. Islamic conquests...
    ( By Ghulam Mohiyuddin )
  • mohtaram GGS saab, agar mai mud ke keh doon ke aap ko yeh behtar hogaa....
    ( By hats off! )
  • people are going to die in detention cetres and do you mean to say that we should live in patience...
    ( By Abdullah )
  • Ek fancy question ye bhi hai? “ghar waapsi karake ek khuda ki puja karaaenge ya anek? Ek khuda waale ghar me ...
    ( By Suhail )
  • Two questions are important for us to understand much about where we are today: Is it necessary to establish Islamic ...
    ( By Suhail )
  • SatishB is very happy because China is persecuting Ughur Muslims. He has all rights to be happy. I wish him real...
    ( By GGS )
  • Ghar waapsi karne ke liye tayyar hain agar Quran aur Veda ko achche se samjhaa denge to. Jab talwar....
    ( By Suhail )
  • If there is truly monotheism in Hinduism, why there is no agenda taken by state-power actors to lay a heavy ....
    ( By GGS )
  • you can say about monotheism of Hinduism. I want to know it from you'
    ( By GGS )
  • Hats off bhayya, jo bhi crimes ho rahe hain Baghdad me dar asal wo ek ghinauni saazish ka jaal hai jise kuch logon ....
    ( By Asif )
  • the world has grown up, but you remained a child, mr GGS, whatelse...
    ( By Ravi Kumar )
  • SatishB Ji, Nice to see day and night politics of India and Pakistan. We will not lag behind in believing ...
    ( By GGS )
  • Hats off Ji, Aap ise joke of the day maan sakte hain, “agar kawwa khana halala hai ke masle me Baghdad...
    ( By Ghulam Ghaus Siddiqi غلام غوث الصديقي )
  • what is this qareen brother in your comments?'
    ( By Zain )
  • Agar kawwa khana haal hai ke masle me jo argumentive techniques istemaal hota hai us arguments se Baghdad ...
    ( By Ghulam Ghaus Siddiqi غلام غوث الصديقي )